“মোস্তাফিজুর রহমান” দ্যা কাটার মাস্টার।

0
114
credit: bn.wikipedia.org

“মোস্তাফিজুর রহমান” ১৯৯৫ সালের ৬ই সেপ্টেম্বর খুলনায় জন্মগ্রহণ করেন।তার ডাকনাম “ফিজ। কেও কেও ডাকেন “কাটার মাস্টার”।তার উচ্চতা ৫.১১ ফিট।”মোস্তাফিজুর রহমান” এর বোলিং তান্ডবে একসময় ইন্ডিয়ার মত দল হাবুডুবু খেত।বর্তমানে “মোস্তাফিজুর রহমান” ২৪ বছর বয়সী।তিনি ইন্ডিয়ার বিপক্ষে অভিষেক ম্যাচেই ৫ টি উইকেট তুলে নেন, যা দেখে ইন্ডিয়ান ক্রিকেট বোর্ড এর চোখ কপালে উঠে যায়।”মোস্তাফিজুর রহমান” এর টি২০ অভিষেক হয় পাকিস্তানের বিপক্ষে ২০১৫ সালের ৫ই এপ্রিল।পরের বছরই তার টেস্ট ও অডিয়াই ফরমেটে অভিষেক হয়।

“মোস্তাফিজুর রহমান” পড়ালেখায় তেমন মনোযোগী ছিলেন না,কিন্তু খেলায় মেতেছেন তিনি।তার লেগ কাটার বোলিং তাক লাগিয়েছে বিসিবিকেও। পারা গায়ে খেলে খেলে বিখ্যাত হতে শুরু করে “মোস্তাফিজুর রহমান”। “মোস্তাফিজুর রহমান” এর পাশে দাড়িয়েছিল তার সেজো ভাই “মোখলেসুর রাহমান, তিনিই “মোস্তাফিজুর রহমান” কে প্রতিদিন নিয়ে জেতেন প্রেক্টিস করাতে।তিনি প্রতিদিন বাইকে করে নিয়ে যেত “মোস্তাফিজুর রহমান” কে।তারপর থেকেই তার এই অগ্রযাত্রা। “মোস্তাফিজুর রহমান” বাংলাদেশের গর্ব।তিনি আইপিএলে” সানরাইসার্স হায়দ্রাবাদে ” ডাক পান। ১ কোটি রুপি দিয়ে কেনা হয় তাকে।তিনি সেখানে দেখান তার প্রতিভা, “আন্দ্রে রাসেল” কে যা চমতকার ইয়রকার বল দিয়ে উরিয়ে দেন তিনি, যা ছিল রীতিমতো দেখার মত। পাশাপাশি ডাক পান “বিগব্যাস লীগ” হতে, যা তাকে দেয় তার ক্যারিয়ারে একটি ভিন্ন মাত্রা।তার নাম ছড়িয়ে পড়ে চারদিকে, আইপিএল তাকে দেয় “ফ্যান্টাসি বোলার” খেতাব। চারদিকে “দ্যা ফিজ” নামটি বাতাসের মত ছড়িয়ে পড়ে।”মোস্তাফিজুর রহমান” বিবাহ করেন তার জেলার ডিসির মেয়র সাথে।তাকে যথেস্ট মর্যাদা দেয় “সানরাইসার্স হাইদ্রাবাদ” একই হোটেলে থাকেন “মোস্তাফিজুর রহমান” ও “ট্রেন্ট বোল্ট”। তাদের দুজনের একটি সেল্ফি এ কথার জানান দেয়। “মোস্তাফিজুর রহমান” বাংলার গর্ব, বাংলার অমুল্য সম্পদ।

অনেক অনেক শুভকামনা রইল, দ্যা কাটার মাস্টার “মোস্তাফিজুর রহমান”

তার ক্যারিয়ার

টেস্টঅডিয়াইটি২০
ম্যাচ১৩৫৪৩৯
মোট রান৫৬৫৭২৫
হাফ সেঞ্চুরি০০০০০০
সেঞ্চুরি০০০০০০
বেস্ট রান১৬১৮০৮
উইকেট২৭১০৩৬৭
বোলিং গড়৩৫.১৭২২.৬৫১৯.৬৮
বেস্ট বোলিং৬/৩৭৭/৪৩৫/২৬
ক্যাচ০১০৯০৮

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে