নো-বলের পর স্যান্টোকির রান আউট নিয়ে সমালোচনার ঝড়

1
71

প্রথম থেকেই নাটকীয়তা আর সমালোচনার মধ্য দিয়ে শুরু ২০২০ বঙ্গবন্ধু বিপিএল। সুধু তাই নয় আবার তুলকালাম সান্তকির সন্দেহজনক কাণ্ড । 

বঙ্গবন্ধু বিপিএলের উদ্বোধনী ম্যাচে দৃষ্টিকটু একটি ওয়াইড ও একটি নো বল ডেলিভারি করলে ফিক্সিংয়ের সন্দেহ জাগে স্যান্টোকির বিরুদ্ধে। এ নিয়ে তার দল সিলেট থান্ডারে তো বটেই, পুরো বিপিএল অঙ্গনেই বিরাজ করছে অসন্তোষ।

গতকাল রাজশাহীর বিপক্ষে ম্যাচে এই ক্যারিবীয়ান এমনভাবে রান আউট হলেন- যা আবারো ফিক্সিংয়ের সন্দেহের জন্ম দিয়েছে।

গতকাল নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে রাজশাহী রয়্যালসের মুখোমুখি হয়েছিল সিলেট থান্ডার। সিলেটের ইনিংসের ১৪তম ওভারের শেষ বলে স্যান্টোকির ব্যাট ছুঁয়ে বল যায় মিড অফে থাকা ফিল্ডারের হাতে। স্বাভাবিক দৃষ্টিতে মনে হতেই পারে- এখানে রান নেওয়ার কোনো সুযোগ নেই। কিন্তু স্যান্টোকি দৌড়ে উইকেটের মাঝপথে চলে আসেন।

নন স্ট্রাইকিং প্রান্তে থাকা নাভিন উল হক স্যান্টোকিকে রান নিতে মানা করেন। কিন্তু তাতেও স্যান্টোকির ‘উইকেট বাঁচানো’র চেষ্টার কমতি ছিল। রাজশাহীর উইকেটরক্ষক লিটন দাস যখন বলের আঘাতে স্ট্যাম্প ভেঙে দিচ্ছেন, তখন হয়ত ডাইভ দিলে ক্রিজের সীমায় ঢুকে যেতে পারতেন স্যান্টোকি। কিন্তু সেই চেষ্টাও নেই!

তাছাড়া এই নিয়ে বিখ্যাত ইংলিশ পত্রিকা দ্য গার্ডিয়ান লিখেছে – “এটা অবিশ্বাস্য। সে ইচ্ছে করলে বলটা ভালভাবে করতে পারতো “।

কিন্তু অবাক করার বিষয় বিদেশের মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়লেও এখনো বিসিবির কোন পদক্ষেপ এ ব্যাপারে নিতে দেখা যায়নি

এ কারণে সিলেটের টিম ম্যানেজমেন্টকে নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে।  স্যান্টোকিকের এসব বিষয়ে অসন্তোষ খোদ পরিচালক তানজিল চৌধুরী প্রকাশও।তারপরেও পরের ম্্যাচে তাকে একাদশ এ রেখেছেন যা সবাইকে আরও ভাবিয়ে তোলে।

১ মন্তব্য

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে